আজ - বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪
Bangla Edition

ধর্মশালাতে টাইগারদের প্রতিপক্ষ অদম্য ইংলিশ বাহিনী


লেখক: MD.MAMUNUR RASHID
প্রকাশিত হয়েছে: ১০ অক্টোবর ২০২৩

ধর্মশালাতে টাইগারদের প্রতিপক্ষ আজ ইংলিশ বাহিনী।বাংলাদেশ ক্রিকেট টীম আজ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সকাল ১১ টায় মাঠে নামবে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে জয় তোলে নিয়েছে বাংলাদেশ।অন্যদিকে ইংলিশরা কিউইদের সাথে হার দিয়ে শুরু করেছে বিশ্বকাপ মিশন।দুদলের জন্যই জয়টা আজ অনেক গুরত্বপূর্ণ।


Image Source: cricketkhel.com

আর মাত্র ৬ ঘন্টা বাকি ম্যাচ গড়ানোর। ধর্মশালা প্রস্তুত সম্ভাব্য রণক্ষেত্র হিসেবে। লিভিংস্টোনের হুংকার! হুংকার ছেড়েই বুঝি ভুল করে ফেলবেন নাকি শিকার করবেন টাহগারদের সেটা দেখার অপেক্ষায় প্রহর গুনছে সহস্র ভক্ত। কাপ্তান সাকিবে যে ভরসা তাদের যথেষ্ট। এরপর ইংলিশদের শুরুটাও হয় নি আশানুরূপ যে কারনে বাজবল শিবিরে রয়েছে খানিক উদ্বেগ। এদিকে আফগানবাহিনীর সাথে দারুন একটা জয় স্বাভাবিকভাবেই টিম বাংলাদেশকে নতুন স্বপ্নের হাতছানি দিচ্ছে। ভেন্যু হিসেবে ধর্মশালা প্রাকৃতিক নৈসর্গিক কিন্তু আউটফিল্ডের অবস্থা যা তা।মুজিব তো অল্পের জন্য ইনজুরি থেকে বেচে ফিরলেন।

জোনাথন ট্রট তো আগেভাগেই সতর্ক করে দিয়ে রেখেছেন স্বদেশীদের।নিজে কোচ হিসেবে হারলেও জাতিগত ভাবে হারাটা হয়তো একদম পছন্দ হবে না ট্রট সাহেবের। ইংল্যান্ডের সম্ভাব্য একাদশ নিয়ে ভাবা যাক- ওপেনিং করবেন জনি বেয়ারস্টো ও ডেভিল মালান। ৩নং এ যথারীতি মি. ক্ল্যাসিক রুট,এরপর যথাক্রমে হারি ব্রুক,মইন আলি,বাটলার, লিভিংস্টোন। ক্রিস ওকসের জায়গায় রিচ টপলি অথবা ডেভিড উইলো কে খেলানোর সম্ভাবনা বেশি। আদিল রাশিদের লেগস্পিন হতে পারে ইংলিশদের সফল অস্ত্র এছাড়া রয়েছে মার্ক উডের পেস। মইন খানের কোয়ালিটি অফস্পিন কে উপেক্ষা করলে বিপদে পড়তে হতে পারে টাইগারদের।

রিচ টপলিকে প্রস্তুতি ম্যাচে তিন উইকেট দিয়েছিলো টাইগার্স।সেটাও কপালে চিন্তার বাড়তি ভাজ টাইগার্স ভক্তদের জন্য। ইংলিশরা ৮/৯ বছর আগে টিম ইন্ডিয়াকে হারিয়েছিলো ৩০০+ স্কোর চেজ করে তাও আবার মাত্র তিন উইকেট হারিয়ে যে ম্যাচে লিভিংস্টোন খেলেছিলেন এক টর্নেডো ইনিংস সেঞ্চুরি সমেত।যা তাদের ভেন্যু হিসেবে একটা বাড়তি সুবিধা পাচ্ছেন বলেই মনে করছেন তারা।তবে আফগানিস্তান বাংলাদেশ খেলায় পিচে যথেষ্ট সুবিধা আদায় করে নিয়েছিলেন বোলাররা।

মিরাজের ফিফটিতে বেশ কবার লাইফ ফিরে পান উনি এছাড়া শান্তকে যথেষ্ট বেগ পেতে হইছে শট খেলতে। আফগানিস্তান তো ১৫৬ রানে গুটিয়ে গেলো এমনকি সেট ব্যাটসম্যান রহমানুল্লাহ গুরবাজ খেলছিলেন খুব দেখে শোনে। আগামীকাল বোলাররা বাড়তি সুবিধা পাবে বলেই মনে হচ্ছে। অপরদিকে সাকিব ও টিম ম্যানেজমেন্ট বাড়তি স্পিনার হিসেবে শেখ মেহেদী অথবা নাসুম কে খেলানোর সিদ্ধান্ত নিতেই পারে। আফগান ম্যাচে একটা স্পিনারের অভাব প্রকট ছিলো টাইগার স্কোয়াডে। কিন্তু রিপ্লেসমেন্ট হিসেবে বসিয়ে রাখা হবে কাকে? মাহমুদউল্লাহ নাকি তানজিদ তামিম অথবা লিটন দাস!

সাকিবের ক্যাপ্টেন কলে লিটন দাস থাকবেন।তবে দাসকে ওপেনিং স্লট থেকে বাদ দিয়ে মিডল অর্ডারে শিফট করার একটা ভালো সম্ভাবনা রয়েছে।মুস্তাফিজ,তাসকিন থাকবেন যথারীতি। বেয়ারস্টো কে আটকানোর জন্য সাকিব খুব দ্রুত আক্রমণে আসবেন বলেই মনে হচ্ছে।এছাড়া মালান কে আটকায়তে তাসকিন অথবা মুস্তাফিজ হতে পারে সম্ভাব্য সমাধান যে ৬-৮ মিটার লেংথে ফোর্থ বা ফিফথ স্ট্যাম করিডোর ধরে স্ট্যাম্পের ১/২ ইঞ্চি বেশি উপর দিয়ে টানা আক্রমণ করতে পারে টীম টাইগার্স।

ট্যাগ

world cup cricket 2023Bangladesh cricket teamEngland cricket teambangladesh vs englanddharmshalasakib al hasancricketban vs england match prediction

এই সম্পর্কিত আরও পড়ুন


মন্তব্য